1. nannunews7@gmail.com : admin :
February 21, 2024, 1:36 am
শিরোনাম :
কুষ্টিয়ায় একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে জেলা প্রশাসনসহ সর্বস্তরের মানুষের ফুলেল শুভেচ্ছা আলমডাঙ্গায় যাত্রীবাহী বাস ও মোটর বাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত-১ কুৃষ্টিয়ার সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে মিরপুরে মানববন্ধন এক বছরেও ইউপি নির্বাচনে ভোটের ডিউটির টাকা পাননি আনসার সদস্যরা  দৌলতপুরে পথ নির্দেশক স্থাপন কার্যক্রমের উদ্বোধন আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবসে কুমারখালী পাবলিক লাইব্রেরীর আয়োজনে একুশের কবিতা পাঠের আসর মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজ ফুল বাগানের নতুন রাণী ‘নন্দিনী’ চাষ পদ্ধতি হংকংয়ে না খেলার বিষয়ে মেসির বিবৃতি একুশে পদক পেলেন ২১ জন

কুষ্টিয়া তালবাড়িয়ায় চতুর্থ শ্রেনীর  ছাত্রকে লম্পট দশম শ্রেনীর ছাত্র কর্তৃক বলাৎকার ,ধামা চাপা দেয়ার চেষ্টা

  • প্রকাশিত সময় Saturday, June 17, 2023
  • 92 বার পড়া হয়েছে

মিরপুর প্রতিনিধি ॥ বৃহস্পতিবার তখন অনুমান দুপুর ১টা। টিফিন পিরিয়ড শুরু হলো কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলার শামুকিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। চতুর্থ শ্রেনীর জনৈক ছাত্র বিদ্যালয় মাঠে ঘোরাফেরা করছে। এমন সুযোগে পাশ্ববর্তি শুকুর আলীর ছেলে তালবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এস, এস, সি পরীক্ষার্থী লম্পট সজীব (১৭) তাঁকে ফুসলিয়ে পাশ্ববর্তি একটি ঝোপের দিকে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে চতুর্থ শ্রেনীর ছাত্রের প্যান্ট, শার্ট খুলে বলাৎকার করে। এ ব্যাপারে মিরপুর থানায় একটি বলাৎকারের শিকার পিতা বাবুল হোসেন বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। তবে এখন পর্যন্ত লম্পট সজীবকে পুলিশ ধরতে পারেনি।

জানা যায়, মিরপুর উপজেলার তালবাড়িয়া ইউনিয়নের দিনমজুরের ছেলে চতুর্থ শ্রেনীর ছাত্রের মাতা মিষ্টি খাতুন জানান, তার ছেলে গত ১৫ জুন স্থানীয় রানা খড়িয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্লাস শেষে টিপিন এর সময় পাশের একটি গাছের ছায়ায় বিশ্রাম নিচ্ছিল। এ সময় একই গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে সজীব {১৬} মুখ চেপে ধরে পাশে আড়ালে নিয়ে ধারালো চাকু দিয়ে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে বলাৎকার করে । এ কথা কাউকে বললে মেরে ফেলারও হুমকি দেয় । পরে ব্যাথা করলে স্কুল ছুটি নিয়ে বাড়ী গিয়ে বাবা মাকে সব বলে দেয়। পরে পিতা-মাতা স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নানসহ স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে বিচার দাবী করেন। তিনি অভিযোগ করেন ওই ছেলে এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান বিষয়টি ধামা চাপা দেয়ার চেষ্টা করছেন। সরেজমিন গিয়ে স্থানীয় জনগন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কঠোর বিচার দাবী করেন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সজিবের বাড়ীতে গেলে তাকে পাওয়া যাইনি । স্কুলের প্রধান শিক্ষক এর সাথে মোবাইলে কথা হলে তিনি বলেন আমি শোনার পরে সাথে সাথেই কমিটি কে জানিয়েছি । এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান জানান, আমি বিষয়টি মিমাংসা করার জন্য শনিবার রাত ১০টা পর্যন্ত সময় নিয়েছিলাম। অভিযুক্ত ওই ছেলের পিতা নেই। আমার ওই ওয়ার্ডের মেম্বারও চেষ্টা করছেন বিষয়টি মিমাংসার জন্য। কিন্তু তারা মানতে নারাজ। এখন যেহেতু বিষয়টি আইনের হাতে চলে গেছে। আইনে যেটা হবে আমি তাকেই সহযোগীতা করবো। এ ব্যাপারে কুষ্টিয়া মিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুর রহমান জানান, আমাদের কাছে অভিযোগ এসেছে। আমার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করছি। অভিযান দিয়ে অভিযুক্ত সজীবকে পাওয়া যায়নি। তার বাড়ীতে তালা দেয়া। ভিকটিমের মুখের কথাও শোনার দরকার। এ সব বিষয় নিয়ে আমরা তদন্ত করছি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640