1. nannunews7@gmail.com : admin :
May 27, 2024, 12:22 am
শিরোনাম :
উপকূলে ঘূর্ণিঝড়রিমালেরআঘাত আলমডাঙ্গায় ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে ঝোড়ো হওয়ার সঙ্গে বৃষ্টি, খোলা হয়েছে কন্ট্রোল রুম আলমডাঙ্গার বাঁশবাড়িয়া গ্রামে ঈদগাহ পূণনির্মাণ নিয়ে দুগ্রুপে চরম বিরোধ বাড়ি ঘর ভাঙচুর আলমডাঙ্গায় মিথ্যা অভিযোগ তুলে সংবাদ সম্মেলন করার প্রতিবাদে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন কুষ্টিয়ার মিরপুরের ভেদামারীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষে-আহত-১০ কাঙ্খিত সেবা নেই, তবুও ইবির পরিবহন খাতে বছরে বিপুল ব্যয় ! মিরপুরে হাতের রগ কাটা কৃষি ব্যাংক কর্মচারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার কুমারখালীতে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত জয়নাবাদের তারিকের অবশেষে মৃত্ব্য হত্যাকান্ডঘটিয়েছে চেয়ারম্যান এনামুল হক মঞ্জুঃ আব্দুল মান্নান খান কুষ্টিয়ায় স্বাক্ষর জালিয়াতি কান্ডে সেই প্রতারক মীর সামিউল’র জামিন না মঞ্জুর, একদিনের রিমান্ড মিষ্টি আলু চাষ কৌশল

কুষ্টিয়ার মহাসড়কে তিন চাকার যান, বাড়ছে দুর্ঘটনা

  • প্রকাশিত সময় Sunday, August 28, 2022
  • 50 বার পড়া হয়েছে

হাইওয়ে পুলিশের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগীতায়

কাগজ প্রতিবেদক ॥ নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে কুষ্টিয়া হাইওয়ে পুলিশের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোতীতায় চলাচল করছে তিন চাকার যান। অবাধে এসব যান চলাচলের কারণে ঘটছে দুর্ঘটনা। মহাসড়কে তিন চাকার যান বন্ধে প্রশাসন থেকে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের দূরত্ব ৪৫ কিলোমিটার। সড়কটি তিন চাকার যানের দখলে। মহাসড়কে এসব যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও অবাধে চলছে এসব যান। সড়কটি নিজেদের দখলে রাখতে দ্রুতগামী পরিবহনের সঙ্গে পাল্লা দিয়েই চলছে ইঞ্জিনচালিত নছিমন, করিমন, ভটভটি, আলমসাধু, ইজিবাইক, অটোরিকশা, অটোভ্যানসহ বিভিন্ন যানবাহন। এ ছাড়া চলছে বেপরোয়া গতির মোটরসাইকেলও। কুষ্টিয়া-দৌলতদিয়াগামী পদ্মা-গড়াই পরিবহনের চালক মামুন বলেন, ‘আমাদের গাড়ি চালাতে খুবই সমস্যায় পড়তে হয়। মহাসড়কে এসব তিন চাকার চালকেরা কোনো সিগন্যাল মানে না। ফলে আমাদের গাড়ি চালাতে বিভ্রান্তের মধ্যে পড়তে হচ্ছে।’ আব্দুর রহিম নামে আরেক চালক বলেন, ‘ছোট গাড়ির জন্য খুবই সমস্যায় পড়তে হয়। নছিমন, করিমনের প্রচন্ড শব্দ হয়। হর্ন দিলেও সাইড দিতে চায় না। আর যারা গাড়ি চালায় তাদের নেই কোনো অভিজ্ঞতা। মহাসড়কে চলাচলের সময় ওই সব গাড়ি ডানে যাবে না বামে, সেটা বোঝার উপায় থাকে না। ফলে দুর্ঘটনা ঘটে।’ কুদ্দুস নামে এক ট্রাকচালক বলেন, তিন চাকার যানবাহনগুলো কোনো আইন মানে না। মহাসড়কে উঠেই প্রচণ্ড গতিতে গাড়ি চালায়। সেই সঙ্গে মোটরসাইকেলের জন্যও দুর্ঘটনা ঘটে। কেউ সিগন্যাল মানতে চায় না। দুর্ঘটনা রোধের জন্য মহাসড়ক থেকে তিন চাকার এসব যানবাহন বন্ধ করতে হবে। ইঞ্জিনচালিত তিন চাকার যান মাহিন্দ্রচালক জলিল মোল্লা বলেন, ‘আমরা পেটের দায়ে মহাসড়কে এই যানবাহন চালাই। সারা দিন যে কয় টাকা ইনকাম হয়, তা দিয়ে পরিবার-পরিজন নিয়ে বেঁচে আছি। মহাসড়কে উঠলে পুলিশে ধরে, মামলা দেয়। কিন্তু তারপরও বাধ্য হয়ে চালাতে হয়।’ নছিমনচালক মো. মেহেদী হাসান বলেন, ‘মহাসড়কে নছিমন চলাচল নিষিদ্ধ জেনেও চলাচল করতে হয়। এখন গ্রামের একজন কৃষক তার পাট নিয়ে শহরের হাটে যাবে, সে তো আর ট্রাকে করে নিতে পারবে না। তাকে পাট নিয়ে যেতে হলে নছিমন বা ভ্যানেই যেতে হবে। গ্রাম থেকে শহরে আসলে মহাসড়কে উঠেই হাটে আসতে হবে; তা ছাড়া হাটে যাওয়ার কোনো পথ নেই।’ একটি সুত্র জানিয়েছে, কুষ্টিয়া অঞ্চলে হাইওয়ে পুলিশের কতিপয় পরিদর্শক, উপ-পরিদর্শকের পরোক্ষ ও প্রত্যক্ষ সহযোগীতায় দিনে দিনে কুষ্টিয়া মহাসড়ক গুলোতে অবৈধ তিন চাকার যান চলাচল বাড়ছে বাড়ছে দুর্ঘটনা। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা যাচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640