1. nannunews7@gmail.com : admin :
May 27, 2024, 10:28 am
শিরোনাম :
উপকূলে ঘূর্ণিঝড়রিমালেরআঘাত আলমডাঙ্গায় ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে ঝোড়ো হওয়ার সঙ্গে বৃষ্টি, খোলা হয়েছে কন্ট্রোল রুম আলমডাঙ্গার বাঁশবাড়িয়া গ্রামে ঈদগাহ পূণনির্মাণ নিয়ে দুগ্রুপে চরম বিরোধ বাড়ি ঘর ভাঙচুর আলমডাঙ্গায় মিথ্যা অভিযোগ তুলে সংবাদ সম্মেলন করার প্রতিবাদে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন কুষ্টিয়ার মিরপুরের ভেদামারীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষে-আহত-১০ কাঙ্খিত সেবা নেই, তবুও ইবির পরিবহন খাতে বছরে বিপুল ব্যয় ! মিরপুরে হাতের রগ কাটা কৃষি ব্যাংক কর্মচারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার কুমারখালীতে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত জয়নাবাদের তারিকের অবশেষে মৃত্ব্য হত্যাকান্ডঘটিয়েছে চেয়ারম্যান এনামুল হক মঞ্জুঃ আব্দুল মান্নান খান কুষ্টিয়ায় স্বাক্ষর জালিয়াতি কান্ডে সেই প্রতারক মীর সামিউল’র জামিন না মঞ্জুর, একদিনের রিমান্ড মিষ্টি আলু চাষ কৌশল

আন্দোলনই একমাত্র পথ: ফখরুল

  • প্রকাশিত সময় Saturday, August 20, 2022
  • 58 বার পড়া হয়েছে

আর কোনো নির্বাচন নয়, আন্দোলনই একমাত্র পথ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
শনিবার (২০ আগস্ট) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয়তাবাদী সমর্থিত শিক্ষকদের সংগঠন ‘ইউনির্ভাসিটি টিচার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ইউট্যাব)’ উদ্যোগে বিদ্যুতের লোডশেডিং, জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি, ভোলায় পুলিশের গুলিতে ছাত্র দলের নুরে আলম ও স্বেচ্ছাসেবক দলের আব্দুর রহিম হত্যার প্রতিবাদ ও খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের সবকিছুর সংকটের মূলে একটাই যে, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে। আওয়ামী লীগ জোর করে বিনা ভোটে নির্বাচিত না হয়ে বৃহত রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে ক্ষমতা দখল করে বসে আছে। এখন আমাদের পবিত্র দায়িত্ব আন্দোলন, আন্দোলন, আন্দোলন। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে রাজপথে এই ভয়াবহ বাংলাদেশকে ধ্বংসকারী ফ্যাসিস্ট সরকারকে সরিয়ে সত্যিকার অর্থে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে।
‘আমরা খুব স্পষ্ট করে বলছি, এখন আর কোনো নির্বাচনের কথা নয়, এখন আর কোনো ঘুম পাড়ানির কথা নয়। এখন একটা মাত্র দাবি যে, এই সরকার কবে যাবে, এই সরকার কবে যাবে?
সরকারের উদ্দেশ্যে ফখরুল বলেন, আমরা বলেছি, সবার আগে দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ৩৫ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে যে মিথ্যা মামলা আছে সেই মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। এই সরকারকে অবিলম্বে পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। সংসদ বিলুপ্ত করতে হবে এবং নতুন নির্বাচন কমিশনের মধ্য দিয়ে একটি জনগণের প্রতিনিধিত্বশীল পার্লামেন্ট ও জনগণের সরকার গঠন করতে হবে।
সরকার পরিবর্তনের আন্দোলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সংগঠিত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজকে আপনাদের দায়িত্ব যেসব বুদ্ধিজীবীদেরকে, সব সচেতন মানুষকে আপনারা জাগ্রত করবেন এবং তরুণ যুবক শ্রেণীকে জাগ্রত করবেন যারা এই লড়াইয়ে অংশ নেবে এবং জয়ী হবে।
মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, একদিকে সাধারণ মানুষের জীবন অতিষ্ঠ হয়ে উঠছে। সরকারের বিভিন্ন রকমের নিবর্তনমূলক সিদ্ধান্তের কারণে তাদের পেটে যখন আঘাত করতে শুরু করেছে অর্থাৎ চাল-ডাল-তেল-সবজির দাম এমন পর্যায় গেছে যে সাধারণ মানুষের জন্যে যাদের আয় অত্যন্ত সীমিত তাদের পক্ষে জীবন ধারণই অত্যন্ত অসম্ভব হয়ে পড়েছে। সবচেয়ে করুন অবস্থার মধ্যে আছে যারা নি¤œবিত্তমানুষ, যারা নামতে পারে না, প্রতিবাদ করতে পারেন না, তাদের অভাবের কথা মানুষকে জানাতেও পারে না তারা।
অন্যদিকে আজকে কারা ভালো আছে? একটা লুটেরা এলিট শ্রেণী ভালো আছে। এই লুটেরা এলিট শ্রেণী কারা? এই শ্রেণী হচ্ছে আওয়ামী লীগের রাজনীতিবিদেরা, তাদের মন্ত্রী, তাদের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা। আমলা কিছু আছেন যারা প্রতিদিন দেখবেন বিভিন্ন প্রজেক্ট তৈরি করছেন কীভাবে তাদের আরও বিত্ত সম্পদ তৈরি হবে। কানাডায় বেগমপাড়ায় তাদের বাড়ি তৈরি হবে। আর আছেন, আমি দুঃখের সঙ্গে বলতে চাই, আপনাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু উচ্ছিষ্টভোগী শিক্ষক, কিছু বুদ্ধিজীবী এরা এবং তারা যখন টক-শোতে কথা বলেন তখন মনে হয় মোমেন সাহেব (পররাষ্ট্রমন্ত্রী) বলেছেন, বেহেশতে আছি- এটা অমূলক কোনো কথা নয়। তারা প্রমাণ করতে চান আসলেও মানুষ বেহেশতে আছে।
ইউট্যাবের সভাপতি অধ্যাপক এবিএম ওবায়দুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও মহাসচিব অধ্যাপক মোর্শেদ হাসান খানের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বিএনপির রুহুল কবির রিজভী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক লুৎফর রহমান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক কামরুল আহসান, অধ্যাপক নুরুল ইসলাম, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক গোলাম হাফিজ কেনেডী, অধ্যাপক আবুল হাশেম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মাসুদুল হাসান মুক্তা, অধ্যাপক মামুনুর রশীদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শের মাহমুদ, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক সৈকত, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মোহাম্মদ শামীম, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জাহাঙ্গীর সরকার, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মামুন উর রশীদ, ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের রিয়াজুল ইসলাম রিজু, ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের ডা. পারভেজ রেজা কাকন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের কাদের গণি চৌধুরী, জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের মাহবুব আলম প্রমূখ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640