1. nannunews7@gmail.com : admin :
April 13, 2024, 3:55 am

কুষ্টিয়ায় পৃথক ঘটনায় দুই শিক্ষার্র্থীর মরদেহ উদ্ধার॥ পরিবারের দাবী পরিকল্পিত হত্যা

  • প্রকাশিত সময় Thursday, May 19, 2022
  • 53 বার পড়া হয়েছে

 

কাগজ প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়া সদর ও খোকসা উপজেলা থেকে পৃথক ঘটনায় দুই শিক্ষার্র্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পরিকল্পিত হত্যা দাবী দুই পরিবারের। বৃহস্পতিবার সকালে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার দহকুলা সর্দার গাড়া মাঠের নবুর বাগান সংলগ্ন পুকুর থেকে জীবন আলি (১৮) নামের এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত জীবন দহকুলা বাজার পাড়ার মোঃ শুকুর আলির ছেলে এবং দহকুলা মোহাম্মদশাহী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবারের এসএসসি পরিক্ষার্থী। নিহত জীবনের মামা মোঃ রুহুল আমিন জানান, বুধবার সন্ধায় জীবন তার মাকে মাংশ রান্নার কথা বলে মোটর সাইকেল নিয়ে বাড়ী থেকে বের হয়। রাতে বাড়ী না ফিরলে অনেক খোজাখুজির পর আজ সকাল ৯টার দিকে দহকুলা সর্দার গাড়া মাঠের নবুর বাগান সংলগ্ন পুকুর পাড়ে তার ব্যবহাহিৃত মোটর সাইকেলটি পাওয়া যায়। এরপর পুকুরে খোজাখুজির এক পর্যায়ে পানির নিচ থেকে জীবনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তার মাথায় আঘাতের চিন্ন রয়েছে। এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে দাবীও করেন রুহুল আমিন। কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাব্বিরুল আলম জানান, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে জীবনকে হত্যা করা হয়েছে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে, ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলেই প্রকৃত মৃত্যুর রহস্য উন্মোচন করা যাবে বলেও জানায় ওসি। এদিকে কুষ্টিয়ার খোকসায় হিরোন শেখ নামের এক কলেজ শিক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। নিহত হিরোন উপজেলার শিমুলিয়ার সিংহরিয়া গ্রামের আকমল শেখের ছেলে এবং রাজবাড়ী সরকারী কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী। সে খোকসা হেল্থ কেয়ার সেন্টারে ল্যাব এসিস্টেন্ট হিসেবে কর্মরত ছিল। নিহত হিরোনের মামা নিজাম উদ্দিন জানান, হিরোন লেখাপড়ার পাশাপাশি  খোকসা হেল্থ কেয়ার সেন্টারে ল্যাব এসিস্টেন্ট হিসেবে চাকরি করত। গতকাল বুধবার  রাত ১১টার সময় স্থানীয় একজনের মাধ্যমে আমরা জানতে পারি হিরোন মারা গেছে এবং তার লাশ খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আছে। আমরা তাৎক্ষনিক হাসপাতালে এসে মৃত্যুর কারন জানতে চাইলে খোকসা হেল্থ কেয়ার সেন্টারের মালিক সেলিম রেজা প্রথমে বলেন বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে সেলিমের মৃত্যু হয়েছে। আমাদের সন্দেহ হওয়ায় আমরা আবার  সেলিম রেজার কাছে মৃত্যুর সঠিক কারন জানতে চাইলে সে বলে  হিরোন স্টোক করে মারা গেছেন। নিজাম উদ্দিন আরো বলেন, হিরোনের হাতে ও দুই পায়ের নিচেই আঘাতের চিন্ন রয়েছে। এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। তিনি দাবী করেন খোকসা হেল্থ কেয়ার সেন্টারে কর্মরত রসিয়া খাতুনের সাথে হিরোনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এ কারনেই তাকে হত্যা করা হয়েছে। এব্যপারে খোকসা হেল্থ কেয়ার সেন্টারের মালিক সেলিম রেজার সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান চৌধুরী জানান, হিরোনের মৃত্যুর বিষয়টি রহস্যজনক হওয়ায় তার মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলেই প্রকৃত মৃত্যুর রহস্য জানা যাবে বলেও জানায় ওসি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640