1. nannunews7@gmail.com : admin :
April 24, 2024, 10:13 am

দৌলতপুরের শশীধরপুর গ্রামে সাপের আতংকে দিন কাটাচ্ছে মানুষ

  • প্রকাশিত সময় Thursday, April 21, 2022
  • 58 বার পড়া হয়েছে

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের শশীধরপুর গ্রামে সাপের আতংকে দিন কাটাচ্ছে মানুষ। এই সুযোগে গ্রামবাসিকে নানা কারসাজিতে ফেলছে ওঝারা। মূলতঃ শশীধরপুর পূর্ব পাড়ায় শিশু মরিয়মের মৃত্যুর মধ্য দিয়েই ঘটনা প্রবাহের শুরু। গেল ২৯ মার্চ চার বছরের শিশু মরিয়মকে সাপে কেটেছে ধারণা করে ওঝা দিয়ে ঝাড়ফুক করে পরিবার ও প্রতিবেশিরা। কিন্তু কোন ফল পায়নি তারা। শশীধরপুরে নানীর বাড়িতে বেড়াতে আসা মরিয়ম শায়িত হয়েছে নানার এলাকার কবরস্থানে। দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করে চিকিতসক। তবে, সাপে কামড়ে মৃত্যু কি-না তারা নিশ্চিত করতে পারেননি। শিশুটির স্বজনেরা জানিয়েছেন পায়ে ক্ষতচিহ্ন দেখে সাপের কামড় ধারণা করে ওঝা ডাকা হয়, ঘণ্টা দুয়েক ওঝাদের কার্যকলাপ চলার পর শিশুটি নিস্তেজ হয়ে আসলে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়, সেখানে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করলে বাড়িতে এনে ফের ঘন্টা দুয়েক কারসাজি চালান ওঝারা। দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: মো: তৌহিদুল হাসান তুহিন জানান, মরিয়মকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হয়েছিলো। গ্রামবাসীর কেউই সাপ দেখেননি তবে সামান্য আঘাতেও সাপে কাটা ধারণা করছেন এবং ওঝারা হাত তুলে সাপের কামড় নিশ্চিত জানিয়া ঝাড়ফুক করছেন। এই সুযোগে গ্রামবাসিকে সাপের বিষ মুক্তির নানা কারসাজির ফাঁদে ফেলছে ওঝারা। ঝাড়ফুককারী ওঝাদের অন্যতম শাহাব ওঝা বলেন, আমরা বিশ্বাসের ওপর থেকে এটা করি, আবেগের কারণে করি। সাপে কাটার আতংক কাটাতে স্বাস্থ্যকর্মী ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে সচেতনতামূলক কার্যক্রম শুরু করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম। গ্রামবাসিদের দাবি, গেল তিন সপ্তাহে ৩০ জনকে সাপে কেটেছে এবং তাদের মধ্যে মরিয়ম মারা গেলেও বাকিদের সবাইকে সুস্থ করেছেন ওঝারা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640