1. nannunews7@gmail.com : admin :
April 24, 2024, 10:03 am

মৃত্যু বেশি ঢাকা ও কুষ্টিয়া জেলায়

  • প্রকাশিত সময় Sunday, July 11, 2021
  • 81 বার পড়া হয়েছে

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ভয়াবহ এক সপ্তাহ পার করল বাংলাদেশ। শনিবার দেশে সংক্রমণের ৭০তম সপ্তাহ (৪-১০ জুলাই) শেষ হয়েছে। এই সপ্তাহে মোট রোগী শনাক্ত হয়েছে ৭৩ হাজার ৫৯ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২৭৭ জনের। পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ৭৭ শতাংশ। সোয়া এক বছর ধরে চলমান এই মহামারীতে এমন পরিস্থিতি আর দেখা যায়নি।
গত ঈদুল ফিতরের পর থেকে মূলত ঢাকার বাইরে সংক্রমণ বাড়ছে। তবে কিছুদিন ধরে ঢাকায়ও আবার সংক্রমণ ও মৃত্যু ঊর্ধ্বমুখী। গত এক সপ্তাহে সবচেয়ে বেশি ৪০৩ জনের মৃত্যু হয়েছে খুলনা বিভাগে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৭৭ জন মারা গেছেন ঢাকা বিভাগে। তবে জেলাওয়ারি হিসাবে গত এক সপ্তাহে করোনায় সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা জেলায়। ঢাকা মহানগরসহ ঢাকা জেলায় এই সময়ে মারা গেছেন ১৬১ জন। আর এই এক সপ্তাহে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১০১ জন মারা গেছেন কুষ্টিয়ায়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বিশ্লেষণ করে এই চিত্র পাওয়া গেছে।
সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) উপদেষ্টা মুশতাক হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, সারা দেশের অনেক রোগী চিকিৎসার জন্য ঢাকায় আসছেন। ঢাকায় এখন মৃত্যু বেশি হওয়ার এটি একটি কারণ হতে পারে। তা ছাড়া ঢাকায় জনসংখ্যা এবং রোগী দুটোই বেশি। তিনি বলেন, সীমান্তবর্তী জেলাগুলোতে ঈদের পর সংক্রমণ বেড়েছিল। খুলনা অঞ্চলে ঢেউটা শুরু হয়েছে একটু দেরিতে এবং তুলনামূলক জনসংখ্যাও সেখানে বেশি। চলতি সপ্তাহ থেকে সংক্রমণ স্থিতিশীল হতে পারে। তবে মৃত্যু নি¤œমুখী হবে ঈদের পর। এর মধ্যে ঈদকেন্দ্রিক যাতায়াত আবার বেড়ে গেলে পরিস্থিতির উন্নতি হবে না।
সংক্রমণের শুরু থেকেই রাজধানী ও ঢাকা বিভাগে শনাক্তের সংখ্যা ও মৃত্যু বেশি। দেশের অন্যান্য এলাকার তুলনায় এখানে করোনা শনাক্তের পরীক্ষাও হচ্ছে অনেক বেশি। একক জেলা হিসেবে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ৫ হাজার ৭০১ জনের মৃত্যু হয়েছে ঢাকায়। এর মধ্যে ঢাকা মহানগরের হিসাবও অন্তর্ভুক্ত। তবে সংখ্যার দিক থেকে মৃত্যু অনেক বেশি হলেও শনাক্ত রোগীর সংখ্যার বিপরীতে ঢাকায় মৃত্যুর হার তুলনামূলক কম। শুরু থেকে শনিবার পর্যন্ত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বিবেচনায় ঢাকা জেলায় করোনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ। আর কুষ্টিয়ায় এই হার ৩ দশমিক ৮১ শতাংশ। অন্যদিকে বিভাগওয়ারি হিসাবে শনিবার পর্যন্ত ঢাকা বিভাগে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩২ শতাংশ আর খুলনা বিভাগে এই হার ২ দশমিক ৫৬ শতাংশ।
দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। চলতি বছরের মার্চ থেকে দেশে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ৫ এপ্রিল থেকে ‘লকডাউন’ ঘোষণা করেছিল সরকার। এপ্রিলের মাঝামাঝি সময় থেকে সংক্রমণ কমতে শুরু করেছিল। মে মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে সংক্রমণে আবার ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা তৈরি হয়। জুনের মাঝামাঝি থেকে পরিস্থিতি খারাপ হতে শুরু করে। বিশেষ করে খুলনা ও রাজশাহী অঞ্চলের পরিস্থিতি খারাপ আকার ধারণ করে। রাজশাহীতে পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলেও খুলনায় এখনো পরিস্থিতি খারাপ। বেশ কিছুদিন ধরে ঢাকাসহ দেশের সব জেলাতেই সংক্রমণ বাড়ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640