1. nannunews7@gmail.com : admin :
February 27, 2024, 4:44 pm

কুষ্টিয়ায় হাসপাতালে করোনা রোগীর ঠাসাঠাসি, ২৬ ঘন্টায় ২০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪৩২

  • প্রকাশিত সময় Monday, July 5, 2021
  • 273 বার পড়া হয়েছে

কাগজ প্রতিবেদক ॥ কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মানার নির্দেশনার মধ্যেও সীমান্তবর্তি জেলা কুষ্টিয়ার করোনা সংক্রোমণ আশংখাজনক হারে বেড়েই চলেছে। ভয়ংকর হচ্ছে রুপ। জেলা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে জায়গা নেই। করোনা রোগীর ঠাসাঠাসি। রবিবার সকাল ৮টা থেকে গতকাল সোমবার দুপুর পর্যন্ত  ২৬ ঘন্টায় আরোও ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ১৪ জনের করোনা পজেটিভ ও ৬ জনের করোনা উপসর্গ ছিল বলে নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ তাপস কুমার সরকার। বর্তমানে জেলায় করোনা পরিস্থিত জানতে জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ এ এইচ আনোয়ারুল ইসলামের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে না পেয়ে কুষ্টিয়া ২শ ৫০ শর্য্যার হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ তাপস কুমার সরকার জানান, ২৫০ বেডের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে এখন শয্যার চেয়ে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেশি। করোনা আক্রান্ত এবং উপর্সগ নিয়ে সোমবার সকাল সাড়ে ৯টা র্পযন্ত হাসপাতালে চকিৎিসাধীন রোগীর সংখ্যা দাঁড়য়িেেছ ২৮৭ জনে। এর মধ্যে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাই ১৯৩ জন। আর উপর্সগ নেিয় র্ভতি রয়েছেন আরও ৯৪ জন। ডা. তাপস কুমার সরকার জানান, শয্যা না থাকায় এখন রোগীদরে মেঝেতে ও করিডোরে রাখতে হচ্ছে। প্রতদিনিই হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত এবং উপর্সগ নিয়ে আসা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। রোগীর চাপ যভোবে বাড়ছে তাতে সবো প্রদান করা কঠিন হয়ে দাঁড়াবে। তিনি আরও জানান, গণহারে টিকা, মাক্স পরিধান এবং কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মানার কোন বিকল্প নেই। কুষ্টিয়ার এ অবস্থায় হাসপাতালে জনবল বৃদ্ধি, অক্সিজেন সিলিন্ডার দ্রুত রিফিল এবং আইসিও’র সক্ষমতাকে আরও বাড়াতে হবে। সেই সাথে উপজেলা স্বাস্ত্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক, নার্স, টেকনিশয়ান, অক্সিজেন ব্যবস্থা বৃদ্ধি করা হলে মৃত্ব্যর হার কমানো সম্ভব বলে তিনি মনে করেন।  এই মহামারি রোধে গণহারে টিকা, মাক্স পরিধান এবং কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মানার কোন বিকল্প নেই। কুষ্টিয়ার এ অবস্থায় হাসপাতালে জনবল বৃদ্ধি, অক্সিজেন সিলিন্ডার দ্রুত রিফিল এবং আইসিও’র সক্ষমতাকে আরও বাড়াতে হবে। সেই সাথে উপজেলা স্বাস্ত্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক, নার্স, টেকনিশয়ান, অক্সিজেন ব্যবস্থা বৃদ্ধি করা হলে মৃত্ব্যর হার কমানো সম্ভব বলে তিনি মনে করেন। এদিকে, পিসিআর ল্যাব ও জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্যমতে, গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় ১২২১ জনের নমুনা পরিক্ষা করে ৪৩২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৭.৩ শতাংশ।  গত ৮ দিনে কুষ্টিয়ায় ১৮৪২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আর ৮ দিনে ৮১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত জেলায় ২৬১ জনের মৃত্যু হলো। কুষ্টিয়া করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে রোগীর চাপ বাড়ছে, ২শ’ বেডে করোনা ও এর উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশনে আছেন ২শ ৬৯ জন রোগী। অর্ধেকের বেশি রোগীর অক্সিজেন প্রয়োজন হচ্ছে। মাত্র ৪ টি আইসিইউ বেড ও ১০ বেডে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সাপোর্ট নিয়ে হিমশীম খাচ্ছেন কৃর্তপক্ষ। এদিকে, চলমান ৭ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ স্থানীয় প্রশাসনের তৎপরতার মধ্যেও যত দিন যাচ্ছে তত বেশি মানুষ বাইরে বের হচ্ছেন। স্বাস্থ্যবিধি মানছেন তারা। রবিবার দিনব্যপী অভিযান চালিয়ে সরকারি বিধিনিষেধ অমান্যকারী ৮৬ জনের কাছ থেকে ৬৮ হাজার ৫ শত টাকা জরিমানা আদায় ও ১ জনের জেল দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। সেনা সদস্যদের টহল দিতেও দেখা গেছে।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640