1. nannunews7@gmail.com : admin :
June 15, 2024, 4:10 pm

কুষ্টিয়ার মিরপুরের ভেদামারীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষে-আহত-১০

  • প্রকাশিত সময় Sunday, May 26, 2024
  • 28 বার পড়া হয়েছে

এম আনোয়ার হোসেন নিশি, মিরপুর থেকে ॥ মিরপুর উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের পুরাতন ভেদামারী গ্রামে পারিবাড়িক শরীকানা ও ক্রয়কৃত জমি দখলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ হলে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও পুরাতন ভেদামারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আশরাফুল আলম হিরোসহ ১০ জনকে রক্তাত্ব যখম করেছে। আহত ১০ জনের মধ্যে ৪ জনকে মিরপুর হাসপাতালে ভর্ত্তি করেন এবং অপর ৬ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা করে বিদায় দেন কর্ত্বব্যরত ডাক্তার। তবে শত চেষ্টা করে প্রতিপক্ষরা আহত হয়েছে কি না তা জানা সম্বব হয়নি। এ ব্যাপারে মিরপুর থানার অভিয়োগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানিছেন আহত আশরাফুলের পরিবার। বিশেষ সূত্রে জানান গত ২৫ মে ২০২৪ দুপুরে কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের পুরাতন ভেদামারী গ্রামে পারিবাড়িক শরীকানা ও ক্রয়কৃত জমি দখলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ হয়। আহতরা বলেন আদালত থেকে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে একটি তদন্ত টিম আসে, তদন্ত টিম বিষয়টি সরেজমিন দেখে স্থান ত্যাগ করার সময় উভয়ের মধ্যে কথাকাটা কাটি চলাকালিন দেশীয় অস্ত্র সন্ত্রে সজ্জিত হয়ে হাসিবুল ও তার লোকজন অর্তকৃত হামলা করে ১০ জনকে আহত করেন। আহতরা হলেন প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বারীর পুত্র মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সদস্য ও পুরাতন ভেদামারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আশরাফুল আলম হিরো (৫২),মৃত অয়েন আলী মন্ডলের পুত্র আব্দুল ওহাব (৬০), আব্দুল বারীর পুত্র আশবুল আলম (৩৬), নায়েব আলীর পুত্র জামাল উদ্দিন (৩০)ছমির আলীর পুত্র কাজল (৪৫) সহ ১০ জনকে দেশীয় অন্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে রক্তাত্ব যখম করেন। অর্তকৃত হামলা চালায় প্রতিপক্ষ গ্রুুপের আনছার আলীর ৩ পুত্র হাসিবুল, মহিবুল, ও আলীম, মহিবুলের পুত্র আকাশ, ঐ পরিবারের নারীসহ অজ্ঞাতরা। বতর্মানে আহতরা মিরপুর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা হয়নি- তবে মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন আহত আশরাফুল আলম হিরো। আহতরা আরো বলেন সংঘর্ষের সময় আমরা রক্তাত্ব হয়ে মাটিতে লুফিয়ে পড়লে প্রতিপক্ষরা আমাদের কাছে থাকা নগদ টাকা ও দামি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়েছে। তবে প্রতিপক্ষরা ডাঙ্গাবাজ এবং সমাজের বিশৃংঙ্খাকারী হিসাবে পরিচিত বলেও জানিয়েছেন। এ ঘটনা ধামা চাপা দিতে প্রতিপক্ষরা উল্টা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে বলে বিশেষ সূত্রে জানাগেছে। প্রতিপক্ষবৃন্দ আহত হয়েছে কি-না মোবাইল ফোনে তাদের কোন সারা পাওয়া যায়নি। আহত প্রধান শিক্ষক আশরাফুল আলম বলেন প্রশাসন তদন্ত সাপক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন ও আসামীদের আটক করে সমউপযোগী বিচার করবেন বলে আমাদের বিশ^াস। এ বিষয়টি শুনে শিক্ষক ও মুক্তিযোদ্ধা বৃন্দ তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করতে জোর দাবি জানিয়েছেন পুলিশ প্রশাসনকে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640