1. nannunews7@gmail.com : admin :
February 28, 2024, 10:28 am

রাফাহ অভিযানে ‘বিপর্যয়ের’ ঝুঁকি আছে: ইসরায়েলকে সতর্ক করল যুক্তরাষ্ট্র

  • প্রকাশিত সময় Saturday, February 10, 2024
  • 8 বার পড়া হয়েছে

এনএনবি : গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফাহ নগরীতে সামরিক অভিযান চালানোর বিরুদ্ধে ইসরায়েলকে সতর্ক করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ঠিকমত পরিকল্পনা না করে সেখানে সেনা পাঠালে বিপর্যয়ের ঝুঁকি আছে বলে ইসরায়েলকে সতর্ক করেছে তারা।
গাজায় মিশরের সঙ্গেকার সীমান্তের এই রাফাহ নগরীতে মানবিক পরিস্থিতি একেবারেই মানবেতর। ১৫ লাখ ফিলিস্তিনি সেখানে আশ্রয় নিয়ে আছে।
হোয়াইট হাউজ বলেছে, তারা সেখানকার শরণার্থীদের বিষয়ে চিন্তা-ভাবনা না করেই বড় ধরনের সামরিক অভিযানকে সমর্থন দেবে না।
ইসরায়েলের সেনাবাহিনীকে রাফাহ অভিযানে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে ইসরায়েলের নেতা জানানোর কয়েকদিনের মাথায় যুক্তরাষ্ট্র এই মন্তব্য করল।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক বক্তব্যে রাফাহ নগরীর নাম উল্লেখ না করে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, গাজায় ইসরায়েল অতিমাত্রায় অভিযান চালিয়েছে।
গাজার হামাস পরিচালিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলেছে, ভূখন্ডটিতে শুক্রবার ইসরায়েলের বিমান হামলায় অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছে। তার মধ্যে ৮ জনই নিহত হয়েছে রাফাহ তে। ইসরায়েল এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেনি।
রাফাহর বাস্তুচ্যুত মানুষদের শিবিরে বাস করা এক ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক জানান, বিমান হামলায় নিহতদের মধ্যে শিশু ছিল। কাছের একটি বাড়িতেই গোলা আঘাত হানে। মৃতদেহ তি তলার জানালা দিয়ে উড়ে পড়তে দেখা গেছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানান তিনি।
গাজার অন্যান্য অঞ্চল থেকে উদ্বাস্তু হওয়া মানুষেরা এসে ঠাঁই নিয়েছে রাফাহ নগরীতে। দুই সন্তানের জননী গারদা বলেন, তিনি যুদ্ধের মধ্যে ছয়বার উদ্বাস্তু হয়েছেন। এখন রাফাহ তেও ইসরায়েলের হামলার আশঙ্কা করছেন। তবে সে হামলা হওয়ার আগেই যুদ্ধবিরতি হতে পারে বলে তিনি আশা করছেন।
বিবিসি-কে তিনি বলেন, “তারা রাফাহ তে এলে আমরা শেষ হয়ে যাব। এখানে থাকা মানে মৃত্যুর অপেক্ষায় থাকার মতোই। আমাদের যাওয়ার আর কোনও জায়গা নেই।
নরওয়ের শরণার্থী পরিষদের প্রধান জ্যান ইংল্যান্ড বিবিসি-কে বলেছেন, রাফা বিশ্বের সবচেয়ে বড় উদ্বাস্তু শিবির। সেখানে এমন একটি সামরিক অভিযান বিপর্যয় বয়ে আনবে।
“সেখানে মানুষ পাতলা প্লাস্টিকের তাঁবুতে থাকছে। খাবারের জন্য লড়াই করে বেঁচে আছে। সুপেয় কোনও পানি সেখানে নেই। মহামারীর মতো জেঁকে আছে রোগবালাই। আর সেখানে তারা (আইডিএফ) যুদ্ধ করতে চাইছে। এটা আসলেই হতে দেওয়া যেতে পারে না,” বলেন তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640