1. nannunews7@gmail.com : admin :
June 19, 2024, 5:02 am
শিরোনাম :
কুষ্টিয়া লালন বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বাল্য বিয়ের নির্মম বলি কুষ্টিয়ার মিরপুরে নববধুর ঝুলন্ত লাশ হত্যা করে ঝুলিয়ে দেয়ার অভিযোগ পরিবারের মিরপুরের সাগরখালী আদর্শ ডিগ্রী কলেজ জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০২৪ কুষ্টিয়া জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত কুষ্টিয়ার দৌলতপুর র‌্যাবের অভিযানে ২০ বোতল ফেনসিডিলসহ একজন মাদক কারবারি আটক পবিত্র ঈদুল আজহা কাল পরিত্যক্ত হলো ‘গুরুত্বহীন’ ভারত-কানাডা ম্যাচ আমরা আক্রান্ত হলে ছেড়ে দেবো না সেন্টমার্টিন নিয়ে ওবায়দুল কাদের পদ্মা সেতুতে একদিনে ৫ কোটি টাকা টোল আদায় সবুজ বাংলাদেশ গড়ে তোলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী গাজার ত্রাণবহরে হামলা: ইসরায়েলি সংগঠনের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা যোগদানের তিন মাসের মাথায় প্রায় ২শ মামলায় ৩০ লাখ অর্থ আদায়

  • প্রকাশিত সময় Friday, July 2, 2021
  • 121 বার পড়া হয়েছে

কাগজ প্রতিবেদক ॥ কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাধন কুমার বিশ^াস সদর উপজেলা প্রশাসনকে দুর্নীতিমুক্ত, সরকারী কাজের গতিশীলতা এবং উপজেলা প্রশাসনকে একটি মডেলে রুপান্তর করতে সদর আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতার সহযোগীতায় অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছেন। চলতি বছর গত ৩ মার্চ যোগদানের পর থেকে ব্যাংকের ঋণ গ্রস্থ্যদের কাছ থেকে ৪৫টি সার্টিফিকেট মামলা নিষ্পত্তি করে সেখান থেকে ২৩ লাখ ৬৭ হাজার ১৩৩ টাকা, করোনা সংক্রমন রোধ, মাদক, ইভটিজিংসহ বিভিন্ন অপরাধ রোধ ১৪০টি মামলাসহ প্রায় দেড় শতাধিক মামলা পচিালনা করেছেন। এ ছাড়া বিভিন্ন সরকারী নিদের্শনাকে উপেক্ষা, অবৈধ ব্যবসা, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণসহ বিভিন্ন অপরাধে প্রতিদিন তিনি তার দাপ্তরিক কাজ শেষে অভিযান পরিচালিত করে আসছেন। বিসিএস (৩৩) ব্যাচের এই নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাধন কুমার বিশ^াস সদর উপজেলার ৩ দশমিক ২৬ বঃ কিঃ এরিয়ায়, ১৪টি ইউনিয়ন, ১টি পৌরসভা ১৬৭টি গ্রাম, ১১৬টি মৌজা সম্পর্কে তিনি ইতিমধ্যে সম্যক ধারণা অর্জন করেছেন। তাঁর প্রশাসনিক দক্ষতায় ইতিমধ্যে সদর উপজেলায় নতুন গতীশিলতা আসছে বলে অনেকে মন্তব্য করেছেন। সদর উপজেলার অধিনে কৃষি, মৎস্য, শিক্ষা, যুব উন্নয়নসহ ১৭টি সরকারী দপ্তরে এসেছে কর্মচাঞ্চল্য। এ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাধান কুমার বিশ^াস কুষ্টিয়ার কাগজকে জানান, আসলে যে কোন প্রশাসন মনে করলে একটি উপজেলাকে দুর্নীতিমুক্ত, সরকারী কাজের গতীশিলতা দিয়ে জনসাধারণকে সরকারী কাজে ভোগান্তি থেকে মুক্তি দিতে পারে। তিনি বলেন, কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় এসে আমার কিছু নতুন অভিজ্ঞতা হয়েছে। এখানে যিনি সংসদ সদস্য, তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক একজন দায়িত্বশীল, ক্ষমতাবান ব্যক্তি। আবার তার অনুজ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতাও একজন সামাজিক, জনপ্রিয় মানুষ। মানুষের সেবায় তাদের দুজনের কোন তুলনা নেই। সরকারী কাজের উপর তাদের কোন বাড়তি চাপ নেই। খবরদারী নেই। বাংলাদেশের অনেক জায়গায় এমপি, মন্ত্রী, উপজেলা চেয়ারম্যানদের একটা নিজস্ব বলয় থাকে,সেখানে কিছু চাপ থাকে। তাতে উপজেলা প্রশাসনকে চালাতে কিছুটা বেগ পেতে হয় এখানে সেটা নেই। ফলে এই উপজেলার মানুষ শতভাগ সরকারী সেবা পায়, ত্রাণ, করোনাকালীন সময়ে টিকা সেবা, টেষ্ট সেবা, কৃষকদের মাঝে সার, বীজ বিতরণ, বয়স্ক ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, বিভিন্ন প্রশিক্ষণ, গ্রামের রাস্তা ঘাট উন্নয়নসহ সার্বিক কাজ এখানে যে গতিতে হচ্ছে বাংলাদেশের অনেক জেলায় এটি একটি মডেল হতে পারে বলে তিনি মনে করেন। আগামীতে আরও ভালোভাবে উপজেলা প্রশাসনে কাজ করতে সকলের সহযোগীতা কামনা করেছেন।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640