1. nannunews7@gmail.com : admin :
June 15, 2024, 4:49 am

দৌলতপুরে চায়ের দোকান-ফার্মেসিতে করোনা রোগী, ঝুঁকিতে এলাকাবাসী

  • প্রকাশিত সময় Monday, June 28, 2021
  • 307 বার পড়া হয়েছে

 

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ করোন সনাক্ত রোগীদের মধ্যে যাদের উল্লেখযোগ্য উপসর্গ নেই, তাদের পরামর্শ পত্র দিয়ে হোম আইসোলেশন বা গৃহবন্দী থাকতে বলা হচ্ছে। অনেকক্ষেত্রে রোগীরা কোভিড পজিটিভ জেনেও স্বাভাবিক চলাফেরা করছেন। এমনকি চিকিৎসকদের কাছে সরাসরি গিয়ে কোভিড গোপন রেখে অন্যান্য চিকিৎসা চেয়ে বসছেন। এধরণের ঘটনা ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি করতে পারে। কোভিড আক্রান্ত জানার পর রোগী এবং তার পরিবারের উচিত সরাসরি বাড়িতে গিয়ে আক্রান্ত ব্যক্তিকে আইসোলেশনে রাখা,এটা তাদের দায়িত্ব। হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি নেয়ার মতো শারীরিক অবস্থা দেখলে আমরা সেসমস্ত রোগীকে ভর্তি রাখছি। গণমাধ্যম কে সোমবার এসব তথ্য জানিয়েছেন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ  তৌহিদুল হাসান তুহিন। ২৮ জুন পর্যন্ত গুরুতর উপসর্গ নিয়ে দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন ১২ জন করোনা আক্রান্ত রোগী। এরকমই অভিজ্ঞতার কথা জানালেন দৌলতপুর থানা বাজার এলাকার মা মেডিকেল স্টোরের স্বত্বাধিকার কামরুজ্জামান কামরুল। তিনি জানান প্রতিদিনই দু’একজন রোগী আসেন ফার্মেসিতে। প্রেসক্রিপশন হাতে নিয়ে দেখি করোনা পজিটিভ, তখন বুঝিয়ে তাকে পাঠিয়ে দেই। প্রেসক্রিপশন দেখার আগে পর্যন্ত আমাদের বোঝার উপায় থাকেনা ক্রেতা কোভিড পজিটিভ না-কি নেগেটিভ। হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকার স্থানীয়রা আরও জানান, দৌলতপুর উপজেলা স্বস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতরে এবং বাইরে করোনা আক্রান্ত রোগীদের অবাধ চলাফেরা, যা সংক্রমণের হার সহজেই বাড়িয়ে দিতে পারে। আক্রান্ত ব্যক্তিরা বাইরে এসে অন্যান্য স্বাভাবিক সুস্থ  মানুষদের মতো চলাফেরা করে। চা খায়, ওষুধ কিনে, ভ্যানগাড়ি, ইজিবাইকসহ অন্যান্য যানবাহন ব্যবহার করে। এতে করে প্রায় ৮ লাখ মানুষের উপজেলা দৌলতপুরে থানা সদরের এই বাজার হয়ে উঠতে পারে করোনা সংক্রমণের অন্যতম কেন্দ্র। উপজেলা পরিষদ, হাসপাতাল, ব্যাংক, থানা, কাঁচাবাজার মিলে এই এলাকাটিতে বিভিন্ন জরুরি প্রয়োজনে লকডাউনেও চলাফেরা রয়েছে উপজেলার ১৪ টি ইউনিয়নের মানুষজনদের। পরিস্থিতি সামলাতে  শিগগিরই সবধরনের ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি স্থানীয়দের। সম্প্রতি ভারত সীমান্তবর্তী জেলা কুষ্টিয়ার করোনা পরিস্থিতি আশঙ্কাজনক পর্যায়ে পৌছালে দ্রুত লকডাউন ঘোষণা করে জেলা প্রশাসন। দৌলতপুর এই জেলার ভারত সীমান্ত ঘেঁষা একটি বড় আয়তনের উপজেলা।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640