1. nannunews7@gmail.com : admin :
June 19, 2024, 4:12 am
শিরোনাম :
কুষ্টিয়া লালন বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বাল্য বিয়ের নির্মম বলি কুষ্টিয়ার মিরপুরে নববধুর ঝুলন্ত লাশ হত্যা করে ঝুলিয়ে দেয়ার অভিযোগ পরিবারের মিরপুরের সাগরখালী আদর্শ ডিগ্রী কলেজ জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০২৪ কুষ্টিয়া জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত কুষ্টিয়ার দৌলতপুর র‌্যাবের অভিযানে ২০ বোতল ফেনসিডিলসহ একজন মাদক কারবারি আটক পবিত্র ঈদুল আজহা কাল পরিত্যক্ত হলো ‘গুরুত্বহীন’ ভারত-কানাডা ম্যাচ আমরা আক্রান্ত হলে ছেড়ে দেবো না সেন্টমার্টিন নিয়ে ওবায়দুল কাদের পদ্মা সেতুতে একদিনে ৫ কোটি টাকা টোল আদায় সবুজ বাংলাদেশ গড়ে তোলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী গাজার ত্রাণবহরে হামলা: ইসরায়েলি সংগঠনের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা

শিশু পেটানো মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা : হাইকোর্ট

  • প্রকাশিত সময় Thursday, March 11, 2021
  • 211 বার পড়া হয়েছে

হাটহাজারীতে মায়ের পিছু নেয়া শিশু শিক্ষার্থীকে পেটানোর ঘটনায় মাদ্রাসা শিক্ষক মোহাম্মদ ইয়াহিয়ার বিরুদ্ধে আইনানুগ কী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, তা জানতে চেয়েছে হাইকোর্ট।

আগামী রোববারের মধ্যে তা চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, হাটহাজারী থানার ওসিকে জানাতে বলা হয়েছে।

সেই সাথে নির্যাতনের শিকার শিশুর পরিবারকে কোনো পক্ষ কোনো চাপ সৃষ্টি করেছিল কি না, নির্যাতিত শিশুটিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে কি না, শিশুটির পরিবারকে নিরাপত্তা দেয়া হয়েছে কি না- সেসব তথ্যও জানাতে বলা হয়েছে তাদের।

রাষ্ট্রপক্ষ থেকে বিষয়টি নজরে আনার পর বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি শাহেদ নূরউদ্দিনের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেয়।

পরে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার সাংবাদিকদের বলেন, ‘আইনানুগ ব্যবস্থার বিষয়টি ছাড়াও নির্যাতনকারী ওই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে কিনা, ওই মাদ্রাসা থেকে তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে কিনা এবং বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনে এসেছে- ভুক্তোভোগী শিক্ষার্থীর মা-বাবা নির্যাতনকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রত্যাহার করে নিয়েছেন, ফলে হাটহাজারী থানার শিক্ষক ইয়াহিয়ার বিরুদ্ধে করা মামলা কোনো পক্ষের চাপের কারণে প্রত্যাহার করা হয়েছে কিনা- ইত্যাদি বিষয়গুলোসহ একটি প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।’

এছাড়া নির্যাতনকারী ওই শিক্ষককে বরখাস্ত করার দায়িত্ব জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কি না, তাও আদালতকে জানাতে বলা হয়েছে।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বাশার বলেন, ‘এ ধরনের ঘটানা প্রায়ই দেখা যাচ্ছে। শিক্ষার্থীরা মাদ্রাসার শিক্ষকদের কর্তৃক নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। এ ঘটনাগুলো বারবার সামনে এলেও পরবর্তীতে তাদের বিরুদ্ধে কী ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়, বা হয়েছিল এগুলা কিন্তু জানা যাচ্ছে না। ফলে এই ঘটনাগুলো বারবার ঘটেই চলেছে। এটি তো একটি নীতি-নৈতিকতার বিষয় যে, শিশুর প্রতি কী ধরনের মানবিক আচরণ করতে হবে, কিন্তু কোনো কিছুই তাদের নিবৃত করতে পারছে না।’

এদিকে, গ্রেফতার হওয়া মাদ্রাসা শিক্ষককে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রামের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জিহান সানজিদা শুনানি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এরআগে বুধবার শিশু পেটানোর অভিযোগে চট্টগ্রাম হাটহাজারীর মাদ্রাসার শিক্ষক মো. ইয়াহিয়াকে গ্রেফতার করা হয়।

গত মঙ্গলবার বিকালে হাটহাজারী পৌর এলাকার আল মারকাযুল কোরআন ইসলামিক অ্যাকাডেমির আবাসিক শিক্ষার্থী শিশুসন্তানকে দেখতে যান তার মা। পরে চলে যাওয়ার সময় শিশুটি মায়ের পেছন পেছন ছুট দেয়। তা দেখে শিক্ষক ইয়াহিয়া তাকে ঘাড় ধরে মাদ্রাসার একটি কক্ষে নিয়ে বেদম মারধর করেন।

শিশুটিকে মারধরের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর গভীর রাতে সেখানে অভিযান চালিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রুহুল আমীন আট বছরের শিশুটিকে উদ্ধার এবং শিক্ষক ইয়াহিয়াকে ধরে আনেন। কিন্তু শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে তখন কোনো অভিযোগ না করায় শিক্ষককে বুধবার সকালে ছেড়ে দেয়া হয়।

হাটহাজারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, শিশুটিকে নির্যাতনের অভিযোগে তার বাবা বাদী হয়ে হাটহাজারী থানায় মামলা করেছেন। তারা প্রথমে মামলা করতে রাজি না হলেও পরে বুঝিয়ে রাজি করানো হয়। এই মামলায় মাদ্রাসাশিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পরে আদালতে পাঠানো হয়।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Kushtiarkagoj
Design By Rubel Ahammed Nannu : 01711011640